STORIES for CHILDREN by Sister Farida

(www.wol-children.net)

Search in "Bengali":

Home -- Bengali -- Perform a PLAY -- 091 (Who is the thief 3)

Previous Piece -- Next Piece

নাটক -- আপনার বন্ধুদের জন্য সঞ্চালন করুন !!
শিশুদের সঞ্চালন জন্য না

91. আসলে কে চোর-৩


রিঙ্গু ও বাটু আগ্রহভরে সাদা বিদেশিকে দেখতে পেল একটি বাক্স থেকে একগাছি তার, তার জীপগাড়ির সাথে যুক্ত করলেন। তারপরে একটা সাদা দেয়াল দাড় করলো। ভারতীয় ক্ষুদ্র গ্রামের লোকদের কাছে সবকিছুই ছিল সম্পূর্ণ অজানা বিষয়। ইতোপূর্বে তারা কখনোই চলমান কোনো চিত্র দেখে নাই।

সাহেব গ্রাবঃ ‘খোদা আপনাদের সকলকেই মহব্বত করেন। তিনি তার একমাত্র পূত্রকে জগতে প্রেরণ করেছেন। তার নাম হলো মসিহ। তিনি ঠিক আমাদের মত মানুষ হয়েছেন, কিন্তু কোনো পাপ তাকে স্পর্শ করতে পারেনি, যাকে বলা হয় সম্পূর্ন নির্দোষ। খোদা পাপকে ঘৃণা করেন এবং পাপের শাস্তি হলো মৃত্যু।কিন্তু মসিহ আমাদের পক্ষে এ শাস্তি নিজের স্কন্ধেবহন করে সলিবে প্রাণ দিয়েছেন, আমাদের পাপ মুক্ত করার জন্য। খোদা তাকে মৃত্যু থেকে জীবিত করে তুলেছেন। মসিহের উপর বিশ্বাস করুন তবেই আপনারা নাজাত পাবেন আর আপনাদের জন্য বেহেশতে রয়েছে সুখের ঘর অনন্ত জীবন।’

চলমান চিত্র বন্ধ হলো। পান্ডু ক্ষুদ্র অর্গানে একটা গান গাইল, আর যারা সাহেব গ্রাব এর সাথে কথা বলার আগ্রহ বোধ করলো তারা অপেক্ষাতে রয়ে গেল।

রিঙ্গুঃ ‘সাহেব, তুমি কতদিন আমাদের সাথে থাকবে? তোমার খোদার বিষয়ে আমি আরো বিশদভাবে শুনতে চাই।’

সাহেব গ্রাবঃ ‘আগামী দিন আমরা অন্য গ্রামে যাবো। অবশ্য আমরা আবার দেখা করবো।’

রিঙ্গু ও বাটুর বাড়িতে ফিরে যেতে হলো। কিন্তু জিপের অর্গান কেউ কি তাদের দেখতে পাবে? বিদ্যুতের চমকের মতো তারা বাক্স হাতে করে অর্গান নিয়ে দ্রুত অন্ধকারে মিলিয়ে গেল। তারা একটা পুরাতন ঘর খুঁজে নিল লুকাবার জন্য। এ রাত্র তাদের জন্য বড়ই কষ্টকর ছিল। তাদের মন্দ বিবেকের জন্য নয় বরং হায়নার মতো হিংস্র জীবের হাত থেকে বেঁচে থাকার জন্য। চাদের আলো ঐ রাতে বড়ই উজ্জ্বল ছিল।

রিঙ্গুঃ ‘বাটু, একটা কিছু ওখানে নড়াচড়া করছে। একটা বাঘ। অবশ্যই ওটা বাঘ হবে। আমি ওর চোখের দীপ্তি দেখেছি।’

বাটুঃ ‘তুমি কি এমন স্বপ্ন দেখছো?’

রিঙ্গুঃ ‘না, সত্যি সত্যিই তার উপস্থিতি দেখেছি।’

পরদিন সকালে গ্রামের লোকজন একটা মারাত্মক খবর নিয়ে মুখর হলো।

পুরুষঃ ‘একটা বাঘ এসেছিল। মানুষ খেকো বাঘ।’

মহিলাঃ ‘কি বলছো? কোথায়? কখন?’

পুরুষঃ ‘পাশের গ্রামে একজন মানুষ বাঘের দ্বারা আক্রান্ত হয়েছে।’

রিঙ্গুঃ ‘আমরাও বাঘ দেখেছি।’

কি মারাত্বক উত্তেজনা! যতখন পর্যন্ত কোনো এক পাকা শিকারি তার পরিকল্পনার কথা না বলছে ততক্ষন পর্যন্ত উত্তেজনা চলছে।

শিকারিঃ ‘সর্বোত্তম কাজ হবে, একটা ষাঁর গরু মেরে আজ রাতে পানির কুপের কাছে রেখে দিতে হবে। আমরা একটা উচু গাছে সশস্রর অবস্থায় বসে থাকবো। বাঘটি আকৃষ্ট হবে ষাঁড়ের রক্তের ঘ্রাণে। যখনই বাঘটি এসে ষাঁড়ের মাংস খেতে শুরু করবে অমনি আমরা গুলি করবো।’

পুরুষঃ ‘রিঙ্গু, তুমি কি এখনই আসবে? তোমাকে প্রয়োজন আছে।’

শিকার করার কাজে তাকে বাছাই করা হয়েছে দেখে সে বেশ গর্বিত হয়ে ওঠলো। তবে সাথে সাথে তার ভয়ও ছিল। বাঘ শিকার মারাত্মক ঘটনা। অত্যন্ত মারাত্মক হতে পারে যদি...

পরবর্তী নাটকে তুমিও শিকার করতে সঙ্গ দিতে পারো।


লোকবলঃ ভাষ্যকার, সাহেব গ্রাব, রিঙ্গু, বাটু, শিকারি, নারী ও পুরুষ

© Copyright: CEF Germany

www.WoL-Children.net

Page last modified on November 18, 2019, at 03:07 PM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)