STORIES for CHILDREN by Sister Farida

(www.wol-children.net)

Search in "Bengali":

Home -- Bengali -- Perform a PLAY -- 061 (A new star 1)

Previous Piece -- Next Piece

নাটক -- আপনার বন্ধুদের জন্য সঞ্চালন করুন !!
শিশুদের সঞ্চালন জন্য না

61. নতুন তারকা-১


রাতের আকাশে লক্ষ কোটি তারকা নিয়ত ঝিলমিল করে জ্বলছে। ব্যবিলনের উপর থেকে লোকজন আকাশে উজ্জ্বল তারকারাজি দূরবীণ দিয়ে দেখে থাকে।

১ম পন্ডিত ব্যক্তি: ‘তাকিয়ে দেখ, একটি নতুন তারকা। উক্ত তারকাটি ইতোপূর্বে আর কখনোই দেখা যায় নি।’

২য় পন্ডিত ব্যক্তি: ‘তুমি ঠিকই বলেছো, হঠাৎ করে একটি নতুন তারকার আবির্ভাব ঘটেছে। এর অর্থ কি হতে পারে? উক্ত পন্ডিত ব্যক্তিরা জ্যোতির্বিদ্যায় ছিলেন পারদর্শি, তাদের প্রশ্নের জবাব পাবার জন্য পাথরের ফলক ও তারকা খুঁজতে শুরু করলো।’

১ম পন্ডিত ব্যক্তি: ‘এখানে কথিত ফলক রয়েছে। তারকা আমাদের নির্দেশ দিচ্ছে ইহুদিদের রাজার জন্ম হয়েছে।’

২য় পন্ডিত ব্যক্তি: ‘বিশেষ এক রাজা! আমাদের জন্য সর্বোৎকৃষ্ট কাজ হবে, গিয়ে তাকে খুঁজে বের করা এবং তাকে সম্মান দেখানো, আনুগত্য স্বীকার করা। তিনি আমাদেরও রাজা।’

সে খবর অনন্তকালের রাজা মসিহ জন্মগ্রহণ করছেন। প্রথমে খোদা রাখালদের কাছে ঘোষণা দেন, তারপর ব্যবিলনের পন্ডিতদের কাছে প্রকাশ করেন। এর অল্প দিনের মধ্যেই পন্ডিতগণ তাদের ভ্রমন করার জন্য। উপহার সামগ্রী দিয়ে থলে ও বস্তা ভরাট করে উটে চড়ে রওয়ানা হলেন। তাদের দূরের পথ ৬২০ মাইলের মতো অতিক্রম করতে হলো। তাদের ভ্রমনে মাস ব্যাপি সময় লেগেছিল। মসিহ তাদের কাছে বড়ই গুরুত্বপূর্ণ ছিলেন বিধায় পথকষ্ট তাদের কাছে অনুভুতই হয় নি। তারা মসিহকে সেবা দিতে চেয়েছিলেন আর তারা প্রত্যেকে নিজেদের জীবনে প্রভু হিসেবে বরণ করতে বাসনা প্রকাশ করলেন।

তুমিও কি তাঁর কাছে এমন বাসনা প্রকাশ করবে এই শুভ বড়দিনে ও তাকে তোমার নাজাতদাতা ও প্রভু হিসেবে বরণ করবে? ক্লান্ত অবসন্ন অবস্থায় পন্ডিতগণ শেষতক জেরুজালেম শহরের সিংহদ্বারে পৌছালো।

১ম পন্ডিত: ‘যে রাজার জন্ম হয়েছে তিনি কোথায় আছেন? আমরা তাঁর তারকা দেখেছি তাই ছুটে আসছি তাকে প্রণতি জানাতে।’

কেউই তাদের প্রশ্নের কোনো জবাব দিল না। লোকজন বিস্মিত হয়ে নির্বাক চলে গেল। রাজা হেরোদ সবচেয়ে বেশি হতাশ ও আঘাত পেল, এ ক্রুদ্ধ রাজা যাকে সকলে ভীষণ ভয় পায়, সে তার সিংহাসন হারাবার ভয়ে ভীত হয়ে পড়লো। সে দ্রুত সভাসদ ডাকলো তাদের সাথে পরামর্শ করার জন্য।

হেরোদ: ‘আপনারা কি জানেন ইহুদিদের এ রাজা কোথায় জন্মগ্রহণ করবে?’

সভাসদবৃন্দ: ‘অবশ্যই আমরা জানি। আমরা খোদার কালাম অধ্যয়ন করেছি। উক্ত রাজা বেথেলহেম শহরে জন্মগ্রহণ করিবেন।’

এই সংবাদটি ছোড়ার আঘাতের মতো তার (হেরোদের) বুকে বিধলো। কিন্তু তার ভয়ের ভাব কারও কাছে প্রকাশ করলো না। গোপনে বেবিলনের পন্ডিতদের কাছ থেকে তিনি জেনে নিল:

হেরোদ: ‘কখন সেই তারার উদয় হয়েছিল? আপনারা কখন প্রথমবারের মতো তা দেখতে পেলেন?’

সন্দেহ না করে তারা সঠিক ভাবে দিন তারিখ তার কাছে জানিয়ে দিলেন। তার যা জানার প্রয়োজন ছিল তা সে জেনে নিল।

হেরোদ: ‘বেথেলহেমে গিয়ে শিশুকে খুঁজে বার করো। তোমরা তাকে খুঁজে পেলে এসে আমাকে জানাও কেননা আমিও তার উপাসনা করতে চাই।’

আসলে সে কি নতুন রাজাকে উপাষণা করতে চেয়েছিল, না আদৌ নয়! এ ভয়ঙ্কর রাজা নিজেই রাজা থাকবে আর নতুন রাজাকে হত্যা করার জিঘাংসায় ভুগতেছিল। পন্ডিতগণ জেরুজালেম ত্যাগ করে চলে গেলেন।

পরবর্তি নাটকে তোমরা জানতে পারবে তার পরের ঘটনাগুলো।


লোকবল: ভাষ্যকার, দুইজন পন্ডিত ব্যক্তি, হেরোদ ও সভাসদবৃন্দ

© Copyright: CEF Germany

www.WoL-Children.net

Page last modified on November 07, 2019, at 08:16 AM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)