STORIES for CHILDREN by Sister Farida

(www.wol-children.net)

Search in "Bengali":

Home -- Bengali -- Perform a PLAY -- 106 (End of the line 6)

This page in: -- Arabic? -- Armenian -- Aymara -- Azeri -- BENGALI -- Bulgarian -- Cebuano -- Chinese -- English -- Farsi? -- French -- German -- Guarani -- Hebrew? -- Hindi -- Indonesian -- Italian -- Korean -- Kyrgyz -- Malayalam? -- Portuguese -- Quechua? -- Romanian -- Russian -- Serbian -- Spanish-AM -- Spanish-ES -- Tamil -- Turkish -- Urdu? -- Uzbek

Previous Piece -- Next Piece

নাটক -- আপনার বন্ধুদের জন্য সঞ্চালন করুন !!
শিশুদের সঞ্চালন জন্য না

106. রেখার শেষপ্রান্ত-৬


সঠিক পথ মেনে নাও। একমুখি রাস্তা রাস্তা শেষ পার্কিং করার সুযোগ নেই সঠিকভাবে রাস্তায় চলো দাঁড়াও! ট্রাফিক চিহ্ন ছাড়া আমাদের শহরটি বিশৃঙ্খল ও কলকোলাহলে ভরে ওঠবে। পরিচালনার নিয়ম ও সীমানা ছাড়া আমাদের দেশটি হয়ে উঠবে গোলক ধাঁধায় পরিপূর্ণ।

একটি বিশাল জাতি পথ হারা অবস্থায় নির্জন এলাকায় ঘুরে মরছে। কোনো পথ-ঘাট নেই। কিন্তু লক্ষ্যবিন্দু একটি আছে। মেঘ স্তম্ভের মধ্যে লুকানো, তাদের আগে আগে খোদা নিজেই চলছেন।

তিনি মিশরের দাসগৃহ থেকে বের করে প্রতিজ্ঞাত দেশে পরিচালনা করে নিয়ে যাচ্ছেন।

খোদার মতো কে আছে যে সঠিকভাবে পরিচালনা করার ক্ষমতা রাখে?

চলন্ত মেঘের স্তম্ভ যখন চলারগতি বন্ধ করতো, লোকজন তখন বিশ্রাম পেত। পুনরায় তা চলতে শুরু করলে গোটা জাতি আবার চলতে আরম্ভ করতো। রাতের বেলায় তা ছিল আগুনের স্তম্ভ, এতটাই আলো দিত যা উজ্জ্বল ছিল আলোর স্তম্ভের অধিক।

খোদার মতো কে আছেন যে কিনা সঠিকভাবে পরিচালনা করেন?

ইস্রায়েলিয়ঃ ‘মেঘ স্তম্ভ চলার গতি বন্ধ করেছে। আমরা আমাদের তাবু এখানে গাড়তে পারবো।’

ইস্রায়েলিয় মহিলাঃ ‘সোজা লোহিত সাগরের উদ্দেশ্যে। তাই ভালো।’

ইস্রয়েলিয়ঃ ‘আমি, আমি পরিষ্কারভাবে দেখতে পারছি না, ঘুরে দাড়াও!’

ইস্রায়েলিয় মহিলাঃ ‘তেমনটা তো হতে পারে না। তারা এগিয়ে আসছে!’

ইস্রায়েলিয়ঃ ‘মিশরিয়রা আমাদের আক্রমন করে পরাভুত করতে উদ্দত। আর এর জন্যই এখন আমরা প্রস্তুত!’

ইস্রায়েলিয় মহিলাঃ ‘মূসা, তুমি কেন এ মারাত্মক মরুতে আমাদের নিয়ে এসেছো?’

মূসাঃ ‘ভয় পেয়ো না! আমাদের খোদার মতো খোদা কে আছে? তিনি আমাদের হয়ে আমাদের পক্ষে যুদ্ধ করবেন।’

হঠাৎ করে বিশাল মেঘ ইস্রায়েল অভিযাত্রী ও মিশরিয়দের মধ্যে দেখা দিল। শত্রুদের দিকে তা ছিল অন্ধকার কিন্তু ইস্রয়েলিয়দে জন্য ছিল তা আলোর উৎস। খোদার মতো কে আছে যে এমন পরিস্থিতিতে সাহায্য করতে পারে? তাঁর পক্ষে অসম্ভব বলতে কিছুই নেই! খোদার কাছ থেকে একটি লাঠি পেয়েছিলেন মূসা, তিনি লোহিত সাগরের পানে উক্ত লাঠি দিয়ে নির্দেশ করলেন। (জল গর্জনের শব্দ)

ইস্রায়েলিয়ঃ ‘দেখ কুদরতের কাজ! দেখ, দেখ! সাগরের ঠিক মাঝ দিয়ে একটি পথ সৃষ্টি হয়ে গেল।’

ইস্রায়েলিয় মহিলাঃ ‘ডানে ও বায়ে জলের দেয়াল তৈরি হয়ে আছে। খোদা আমাদের জন্য তা করেছেন।’

কে আছে খোদার মতো যে এমন আশ্চর্য কাজ করতে পারে? এটা সম্পূর্ণ সত্য; সাগরের মাঝস্থান দিয়ে একটি শুকনো পথের সৃষ্টি হলো। ইস্রায়েলিয়রা সকলে উক্ত পথ বেয়ে সাগরের অপর পারে গিয়ে হাজির হলো।

১ম মিশরিয়ঃ ‘তাদের পিছনে দৌড়াও। সাগরের মধ্য দিয়ে যে পথটি তৈরি হয়েছে তা আমাদের জন্যও প্রযোজ্য।’

২য় মিশরিয়ঃ ‘দেখ, গাড়ির চাকা কাদায় আটকে গেছে। আমরা মারা পরলাম। খোদা আমাদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে চলছেন।’

আর এ কথাটাই ছিল মিশরিয় লোকটা শেষ কথা। উভয় দিক থেকে জলের দেয়াল তাদের উপর আছড়ে পড়লো। জলপ্লাবনে পুরো মিশরিয় সেনাবাহিনী ডুবে ডুবে মারা গেল।

ইস্রায়েলিয়ঃ ‘বাঁচা গেল! আমরা বেঁচে গেলাম। আমাদের খোদা শত্রুদের উপর বিজয় অর্জন করলেন এখন এবং সার্বক্ষণিকভাবে।’

আনন্দে উৎফুল্ল হয়ে খোদার উদ্দেশ্যে শুকরিয়ার একটা গান গাইলেন।


লোকবলঃ ভাষ্যকার, ইস্রায়েলিয়, ইস্রায়েলিয় মহিলা, শিশু, মূসা, দুইজন মিশরিয়

© Copyright: CEF Germany

www.WoL-Children.net

Page last modified on November 21, 2019, at 09:17 AM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)