STORIES for CHILDREN by Sister Farida

(www.wol-children.net)

Search in "Bengali":

Home -- Bengali -- Perform a PLAY -- 141 (Up at 5.00 o‘clock 2)

Previous Piece -- Next Piece

নাটক -- আপনার বন্ধুদের জন্য সঞ্চালন করুন !!
শিশুদের সঞ্চালন জন্য না

141. পাঁচ ঘটিকা অবধি-২


(ঘুম ভাঙ্গানো ঘড়ির শব্দ)

সকল ৫ ঘটিকা, ঘুম ভাঙ্গানোর শব্দ ঘড়িতে বেজেই চলছে। হাডসন টেলরের ঘুম ভাঙ্গলো।

বালকঃ ‘এত সকালে! কারণটা কি?’

একাগ্রচিত্তে কারো নাক গলানো ব্যতিরেকে দীর্ঘ সময় ধরে সে বাইবেল পাঠ করতে চেয়েছিল। যেহেতু তিনি মিশনারী হতে বাসনা করলেন তাই এ ব্যবস্থাটা হলো প্রশিক্ষণের প্রথম ব্যবস্থা ও ছবক। এ ছাড়াও তিনি খেলাধুলা শুরু করলেন শরীরটাকে কর্মক্ষম করে তোলার জন্য। প্রায় ১৫০ বৎসর পূর্বে এমনটাই ঘটেছিল। হাডসন টেলর প্রভু ঈসা মসিহকে মহব্বত করতেন বিধায় তিনি মিশনারী হতে চেয়েছিলেন।

(দরজার করাঘাতের শব্দ)

হাডসল টেলরঃ ‘ওহে পালক, চীনের বিষয় জানার মতো কোনো একটা বই আমাকে দিবেন?’

পালকঃ ‘চীন সম্বন্ধিয় বই কেন?’

হাডসন টেলরঃ ‘মসিহ চাচ্ছেন আমাকে ঐদেশে ধর্ম প্রচারকের কাজ করি।’

পালকঃ ‘তাহলে তুমি কেমন করে চীনে যাবে?’

হাডসন টেলরঃ ‘এখন পর্যন্ত সে বিষয় আমি জানতে পারি নি। আমি মসিহ ঈসার উপর আস্থাবান। তিনি আমাকে পরিচালনা করবেন।’

মসিহের উপর আস্থা স্থাপন করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তাঁর উপর আস্থাবান হওয়া আমাদের শিক্ষার বিষয়। হাডসন টেলর মসিহের সাথে একটা চুক্তিতে আবদ্ধ হয়েছিলেন আর তাই তার কাজে লেগেছিল।

হাডসন টেলরঃ ‘প্রভু মসিহ, আমার যা কিছু প্রয়োজন তার সবকিছু আমি তোমার কাছ থেকে চেয়ে নেব, এটাই আমার মূল বিষয়।’

হাডসন বড় কোনো ধনি ব্যক্তি ছিলেন না। কোনো এক সময় তার মাত্র অর্ধ ক্রাউন অর্থাৎ তিন ডলার ছিল। তথাপি তিনি ছিলেন সন্তুষ্ট এবং তা নিয়েই গরিবদের সাথে দেখা করতেন।

লোকজনঃ ‘মিষ্টার টেলর, অনুগ্রহ পূর্বক আমার বাড়িতে আসুন, আমার স্ত্রী অসুস্থ তার জন্য প্রার্থনা করুন। সে বড়ই রুগ্ন।’

হাডসন উক্ত লোকটির পিছনে পিছনে গেলেন, বড়ই খিঞ্জি নোংড়া কক্ষের মধ্যে। তিনি যখন ক্ষুধার্ত ছেলে মেয়েদের দেখতে পেলেন এবং দেখলেন মৃত্যুপথযাত্রী রুগ্ন স্ত্রীকে, তিনি তাদের জন্য প্রার্থনা করলেন আর তার হাতের শেষ কপর্দক অর্থাৎ সম্বলটুকু তাদের দিয়ে দিলেন। তিনি মসিহের কাছে বললেন যে তার ঘরে দুপুরের আহার্যের কোনো ব্যবস্থা নেই। মসিহ তার বিশ্বাসের মর্যাদা দিলেন। ডাকযোগে কুদরতের নজরানা চলে এলো। ১২ ডলার একজন অজানা ব্যক্তি তাকে পাঠালেন। আর মৃত্যু পথের রোগী পুনরায় সুস্থ হয়ে ওঠলেন।

হাডসন ডাক্তার হার্ডের সাথে কাজ করতেন। তিনি একজন প্রসিদ্ধ চিকিৎসক ছিলেন কিন্তু সহজেই সবকিছু ভুলে যেতেন।

ডাক্তার হার্ডেঃ ‘মিষ্টার টেলর, আমি কি আপনার মাসিক ভাতা দিয়েছি এখন পর্যন্ত?’

হাটেঃ ‘না!’

ডাক্তার হার্ডেঃ ‘আমি দুঃখিত, আমি এই মুহুর্তে আমার সবগুলো টাকা ব্যাংকে রেখে দিয়েছি। আপনার স্মরণ করিয়ে দেয়া প্রয়োজন ছিল।’

কিন্তু তিনি মসিহের সাথে যে ওয়াদা করেছেন তার বিপরীত হয়ে যেতো যেখানে মসিহ সবকিছু যোগান দেবার বিষয়ে ওয়াদা করেছেন।

এবার তার ঘর ভাড়া কিভাবে পরিশোধ করবেন? ডাক্তার হার্ডে আর একবার আসলেন রিসিপশন কক্ষে।

ডাক্তার হার্ডেঃ ‘এখানে আপনার মাসিক মাইনা রয়েছে। একজন রোগী এসে তার বিল সোজাসুজি নগদ দিতে চাইলো।’

এভাবে মসিহ হাডসনের সব বিষয় যোগান দিয়ে চললেন। তিনি প্রত্যেকের চাহিদা পুরণ করেন যারাই তার কাছে বিশ্বাস পূর্বক প্রার্থনা জানান। পরবর্তি সময় লন্ডনে ঔষধ বিজ্ঞানের উপর পড়াশুনা করলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের হাসপাতালে খুব মারাত্মক কিছু ঘটেছিল তার সাথে। সে বিষয়ে পরবর্তি নাটকে দেখতে পাবে।


লোকবলঃ ভাষ্যকার, হাডসন টেলর, পালক, ডাক্তার হার্ডে, বালক, পুরুষ

© Copyright: CEF Germany

www.WoL-Children.net

Page last modified on November 12, 2019, at 03:45 PM | powered by PmWiki (pmwiki-2.2.109)